ইউটিউব থেকে আয় কিভাবে করা যায়- ৩ সহজ ধাপে ভিডিও সহ বিস্তারিত

By | জানুয়ারী 19, 2018

ইউটিউবার এখন একটি দুর্দান্ত পেশা। ইউটিউব থেকে আয় ২০১৮ সালে করে অনেক যুবক এখন স্বাবলম্বী। ২০১৮ সালে অনলাইনে আয় করতে হলে ইউটিউব চ্যানেল হতে পারে আপনার উপায়। একটি সুন্দর চ্যানেল বানান। ভিডিও রেকর্ড করুন এবং আপ্লোড করুন আপনার চ্যানেলে। ভিডিও যত ভিউ হবে তত আপনার ইনকাম। ইউটিউব থেকে আয় ২০১৮ সালে কঠিন কিছু নয়। মানতে হবে কিছু নিয়মাবলী এবং সঠিক পদ্ধতি।

ইউটিউব থেকে আয় বাংলায়

শুনতে সহজ মনে হলেও ব্যাপারটা অতটা সহজ নয়। ইউটিউবার হবার প্রথম চ্যালেঞ্জ হলো ভালো ভিডিও বানানো। প্রযুক্তির এই অগ্রগামী ২০১৮ সালে আমরা সকলেই জানি, ভালো ভিডিও বানানোর জন্যে প্রথমেই ভালো ক্যামেরা থাকতে হবে। ভালো ক্যামেরা থাকার পর আপনার ভালো এডিট জানতে হবে। ভিডিও বানিয়ে তার মধ্যে আপনার লোগো বসাতে হবে যেন অন্য কেউ আপনার ভিডিও কপি করে চালাতে না পারে।

ইউটিউবার দের জন্যে কিছু টিপস

আমার কথা পোর্টালে ইউটিউব নিয়ে এটিই প্রথম পোস্ট। আমি চেষ্টা করব যথাসম্ভব বিস্তারিত আলোচনা করতে।

ইউটিউব থেকে আয় ২০১৮ – সহজ উপায়

ইউটিউব থেকে ইনকাম করার পদ্ধতি কিছুটা লম্বা। আমরা যদি কয়েকটা ভাগে ভাগ করে নেই তাহলে ভালো হবে।

ভালো ভিডিও ক্যামেরা

প্রথমেই আসবে একটি ভালো ভিডিও ক্যামেরা। মোবাইলের ক্যামেরা দিয়েও ভিডিও করতে পারেন। প্রাথমিক অবস্থায় মোবাইল ক্যামেরা দিয়ে ভিডিও করা ভালো। ভিডিও টপিক সিলেক্ট করে নিন।

ধরুন আপনি একটি মোবাইল ফোনের রিভিউ দিবেন। মোবাইল ক্যামেরা দিয়ে আনায়াসে ভিডিও করতে পারেন। নিচের ভিডিও টি দেখুন।

ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার

ভালো ভিডিও বানাতে হলে ভালো সফটওয়্যার আবশ্যক। যদি আপনি শিক্ষণীয় কোন ভিডিও বানাতে চান এবং লাইভ দেখাবেন কিভাবে করতে হয় তবে আপনার একটি ভালো ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার দরকার। এমন একটি ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার হলো কেমটেসিয়া। ইউটিউব থেকে আয় ২০১৮ সালে করতে হলে কেমটসিয়ার কোন বিকল্প নেই।

কেমটেসিয়া লেটেস্ট ভার্শন ৯.০ ডাউনলোড করে নিন। ডাউনলোড করার পর আপনি ৩০ দিনের ট্রায়াল ভার্শন পাবেন।

কেমটেসিয়া দিয়ে ভিডিও বানালে আপনি শেয়ার করার সময় সিরিয়াল কি চাবে। অনলাইনে অনেক সিরিয়াল কি পাবেন কিন্তু তা কাজ করানো কষ্টকর। ক্র্যাক ভার্শন দিয়ে কাজ করাটাও বিপদজনক। যেকোন মুহূর্তে ক্রেশ করতে পারে।

ইউটিউব থেকে আয় করার উপায় বাংলায়

সবচেয়ে সহজ উপায় হলো রেজিস্ট্রেশন ইনফো তে গিয়ে চেঞ্জ করে দেয়া। নিচের স্টেপ গুলো ফলো করুন।

কেমটেসিয়া স্টুডিও ৯ আজীবন ফ্রি ব্যবহার

নিচের ইনফোগ্রাফিক টি দেখুনঃ

কেমটেসিয়া স্টুডিও ৯ আজীবন ফ্রি ব্যবহার

কেমটেসিয়া ট্রায়াল ভার্শন ভিডিও এডিটিং টুল

  • এইবার আপনার পিসির কেমটেসিয়ার রুট ফাইলে চলে যান(যেখানে ইন্সটল হয়েছে)।
  • RegInfo নামে একটি ফাইল পাবেন। ওটা ওপেন করুন। (যদি না পান তবে ‘সি’ ড্রাইভে গিয়ে সার্চ করুন RegInfo দিয়ে)কেমটেসিয়া আজীবন ফ্রি পেতে করনীয়RegisterdTo=User এ ‘User’ এর যায়গায় লিখুন ‘Revolution’। ফাইলটি সেভ করুন।
  • ফাইলটির প্রোপারটিজ অপশনে গিয়ে ‘Read Only’ ক্লিক করুন এবং Apply দিন।
  • এইবার আপনার কেমটেসিয়া যেন উপডেট না নেয় তাই ম্যানুয়ালি এই সফটওয়ারটির আপডেট বন্ধ করে দিতে হবে।
  • প্রথমেই কন্ট্রোল প্যানেলে গিয়ে ‘windows firewall’ সিলেক্ট করুন।
  • ‘Advance Settings’ এ গিয়ে ‘Inbound Rules’ এ ক্লিক করুন।
  • ‘Action’ ড্রপ ডাউন থেকে ‘New Rule’ সিলেক্ট করুন।
  • ‘Program’ সিলেক্ট করে নেক্সট এ গেলে আপনি একটি ব্রাউজ এর অপশন পাবেন। এইবার ব্রাউজ করে আপনার পিসির কেমটেসিয়া ফাইলটি দেখিয়ে দিন। নেক্সট ক্লিক করে  ‘Block the connection’ সিলেক্ট করুন।
  • যেকোন একটি নাম চাইবে, একটি নাম দিয়ে দিন
  • একই প্রসেস আবারো করুন ‘Outbound links’ এ ক্লিক করে।

এইবার আপনি অনলাইনে যেতে পারেন এবং আপনার কেমটেসিয়া ওপেন করে ভিডিও শেয়ার করে দেখুন কোন লাইসেন্স কি চাবেনা।

ইউটিউব চ্যানেল তৈরী

ইউটিউব চ্যানেল তৈরী করা এবং ইউটিউব থেকে আয় ২০১৮ সালে করা খুব কঠিন কিছু নয়। আপনার একটি Gmail আইডি থাকলেই আপনি চ্যানেল খুলে নিতে পারবেন।

এই চ্যানেল থেকেই শুরু হবে আপনার ইউটিউব থেকে আয়।

চ্যানেল খুলে ফেলা হয়ে গেলে সেটিংস থেকে কিছু জিনিস জেনে নিতে হবে। প্রথমেই ‘view additional features’ থেকে দেখে নিবেন আপনি Youtube Partner এর জন্যে ‘monetization’ করা আছে কিনা।

ইউটিউবে কিভাবে মোনেটাইজেশন এনাবল করবেনপ্রথমে আপনি উপরের ছবির মত দেখবেন আপনি Ineligible. এইবার বা দিকের সাইডবার (Channel) থেকে Advance এ ক্লিক করুন।

এডভান্স থেকে কান্ট্রি চেঞ্জ করে দিন

Advance এ কিল্ক করার পর নিচের ছবির মত দেখতে পাবেন। ড্রপ ডাউন থেকে বাংলাদেশ না দিয়ে ‘United States’ সিলেক্ট করুন। নিচে গিয়ে সেভ বাটন চাপুন এবং পুনরায় ‘Status and features’ এ প্রবেশ করুন।

ড্রপ ডাউন থেকে ইউএসএ সিলেক্ট করুন-ইউটিউব‘Status and features’ এ প্রবেশ করলে নিচের ছবির মত দেখতে পাবেন। এইবার ‘Enable’ বাটন চাপুন এবং আপনার মোনেটাইজেশান পূরণ করুন।

আপনার গুগল এডসেন্স এ যদি পূর্বে কোন এপ্রুভ করা একাউন্ট থাকে তবে তা আপনার ইউটিউব এর সাথে এড করে নিতে পারেন। আপনার পূর্বের একাউন্ট থাকুক কি না থাকুক আপনার ইউটিউব একাউন্টের ভিডিও টোটাল ৪,০০০ মিনিট ভিউ হলে  এবং আপনার সাবস্ক্রাইবার ১০০০ হলে আপনাকে এপ্রুভাল দিবে।

চ্যানেল হয়ে গেলে, ভিডিও এডিট সফটওয়্যার হয়ে গেলে এখন শুধু ভিডিও বানানোর অপেক্ষা। ভালো ভিডিও বানাতে হলে আগে ভালো ভিডিও দেখুন। ইউটিউব এ রেগুলার ভালো ভিডিও দেখুন এবং আইডিয়া নিন।

ইউটিউব থেকে আয় ২০১৮ সালে করতে হলে আপনাকে অবশ্যই যারা আয় করছে তাদের প্যাটার্ন বুঝতে হবে।

কেমটেসিয়া দিয়ে ভিডিও বানানোর সবচেয়ে মজা হলো এটি অত্যন্ত সহজ এবং প্রফেশনাল। কেমটেসিয়ার মাধ্যমে আপনি আপনার চ্যানেলের জন্যে একটি সুন্দর Intro (প্রতিটি ভিডিও শুরুর সময় আপনার চ্যানেলের নাম এবং লোগো) বানাতে পারেন যা আপনার ভিডিওর কোয়ালিটি এবং গ্রহনযোগ্যতা বাড়িয়ে দিবে হাজার গুন। ইউটিউব থেকে আয় ভালো হবে।

ইউটিউব থেকে আয় ২০১৮ সাল সংক্রান্ত পরামর্শ

  • অন্যের ভিডিও কপি করবেন না।
  • অন্যের ভিডিও কপি করে এডিটিং করে নিজের লোগো ব্যবহার করবেন না। এটা ইউটিউব এর শর্ত লংঘন করে।
  • ভিডিও আপলোড এর সময় টাইটেল এবং ডেসক্রিপশন ভালোভাবে প্রয়োগ করবেন। ট্যাগ উল্লেখ করবেন আপনার ভিডিওর সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ এমন।
  • সাব টাইটেল দেয়াটা ভালো। ইউটিউব সাব টাইটেল দেয়া ভিডিও বেশি গুরুত্ব দেয়।
  • ভিডিও পাবলিশ করার সময় যে কতগুলো সোশ্যাল শেয়ারের অপশন দেয় সবগুলো ব্যবহার করবেন। যেমন টুইটার, রেডিট, টাম্বলার ইত্যাদি।
  • আপনার ভিডিও ভালো হলে সাবস্ক্রাইবার বাড়বে। সাবস্ক্রাইবার দের একটি লিস্ট করুন। নিয়মিত তাদের ইমেইল করুন আপনার নতুন ভিডিও সম্পর্কে।
  • ১০,০০০ ভিউ হলে গুগল আপনার সাথে সযোগাযোগ করবে এডসেন্স এর এড এর ব্যাপারে। যদি  না করে তাহলে আপনি যোগাযোগ করুন।
  • ইউটিউব এড কোড দিলে তা আপনার ভিডিওতে যোগ করে নিতে হবে।
  • আপনার কোন ওয়েবসাইট থাকলে তার লিংক আপনি আপনার ইউটিউব এর ভিডিওর মাধ্যমে প্রচার করতে  পারেন।
  • কখনোই এডাল্ট কোন ভিডিও প্রকাশ করবেন না। হ্যাকিং সম্পর্কিত কিছু প্রকাশ করবেন না। ইউটিউব থেকে আয় বন্ধ হয়ে যাবে।
  • এডাল্ট বা হ্যাকিং সংক্রান্ত ভিডিও হলে ইউটিউব আপনার চ্যানেলে এড বন্ধ করে দিবে।
  • ইউটিউব বেসিক এসইও করে নিন।
  • সোশ্যাল শেয়ার করে আপনার ভিডিও প্রাথমিক ভাবে মানুষের কাছে পৌঁছালেও অরগানিক সার্চ ছাড়া আপনি ইউটিউব থেকে আয় করতে পারবেন না। এটা মাথায় রাখতে হবে।
  • সার্চ ইঞ্জিন ফ্যাক্টর গুলো মাথায় রাখতে হবে। সেই ভাবেই আপনার ইউটিউব চ্যানেল মোনেটাইজ করতে হবে।

ইউটিউব থেকে আয় সংক্রান্ত কোন জিজ্ঞাসা বা পরামর্শের জন্যে ইমেইল করুন admin@amarkotha-bd.com

Share This!

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।